রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত 2024

Rate this post

রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত

ভূমিকা:

 

রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত রমজান মাসের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেl এর তাৎপর্য অনেক বেশিl রোজা

আমাদেরকে অনেক সওয়াবের মাস হিসেবে আমাদের কাছে এসেছেl যারা এই মাসে রোজা

পালন করবে, তাদেরকে আল্লাহ রাব্বুল আলামিন নিজ হাতে রোজা রাখার পুরস্কার দান করবেনl

তাই আমাদের কর্তব্য হলো: আমরা যেন ফরজ রোজা রাখতে পারি এবং কি এই মাসে বেশি বেশি

করে সকল ইবাদত করতে পারি সে ব্যাপারে আমাদেরকে প্রস্তুত হতে হবেl

এক মাস আমাদের জন্য আল্লাহ রাব্বুল আলামীন রোজাকে ফরজ করেছেন। রোজা হলো

ইসলামের  ফরজ বিধানগুলোর মধ্যে অন্যতম।

আর শরীয়তের পরিভাষায় সওম বলা হয়,

সুবহে সাদিক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত রোযার নিয়তে পানাহার, স্ত্রী সহবাস  সকল কাজ থেকে বিরত

থাকা।

 

আরো পড়ুন

 

রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত:

 

রমজানের গুরুত্ব সম্পর্কে এখন আমরা জানবোl তার সঙ্গে

আমরা জানবো ফজিলত সম্পর্কেl চলুন তাহলে কোরআন হাদিসের আলোকে এ সম্পর্কে

বিস্তারিত ভাবে জেনে নেওয়া যাকl

রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত
রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত

 

আরো পড়ুন

 

আল্লাহ তাআলা সূরা বাকারার ১৮৩ নং আয়াতে বলেন,

 

يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آَمَنُوا كُتِبَ عَلَيْكُمُ الصِّيَامُ كَمَا كُتِبَ عَلَى الَّذِينَ مِنْ قَبْلِكُمْ لَعَلَّكُمْ تَتَّقُونَ

 

হে ঈমানদারগণ! তোমাদের উপর রোযা ফরয করা হয়েছে, যেমন ফরয করা হয়েছিল

তোমাদের পূর্ববর্তীদের উপর, যেন তোমরা মুত্তাকী হতে পার।

হযরত মুসা আ. এর উপর ৪০ দিন রোজাকে ফরজ করেছিলেন। এ ছাড়াও অন্যান্য আরো

অনেক নবীর উপর রোজাকে ফরজ করেছেন।

রমজান মাসে একজন মুসলমানের জন্য রোজা রাখা ফরজ। এই সম্পর্কে আল্লাহ  সূরা বাকারার

১৮৫ নং আয়াতে বলেন,

فَمَنْ شَهِدَ مِنْكُمُ الشَّهْرَ فَلْيَصُمْهُ

সুতরাং তোমাদের মধ্যে যে ব্যক্তিই এ মাস পাবে, সে যেন অবশ্যই রোযা রাখে।

এই সম্পর্কে শুধু কুরআনে নয়, হাদীসেও নবীজি সা. ইরাশাদ করেছেন। সহীহ বুখারীর ১৯০৯ নং

হাদীসে নবীজি সা. বলেন,

إذا رأيتم الهلال فصوموا وإذا رأيتموه فافطروا، فإن غم عليكم فصوموا ثلاثين،

যখন তোমরা (রমযানের) চাঁদ দেখবে, তখন  থেকে রোযা রাখবে আর যখন (শাওয়ালের) চাঁদ দেখবে, তখন থেকে রোযা বন্ধ করবে। আকাশ যদি মেঘাচ্ছন্ন থাকে তবে ত্রিশ দিন রোযা রাখবে।

নবীজি এখানে স্পষ্ট বলেছেন, রমজানের চাঁদ দেখার সাথে সাথেই রোজা ফরজ হয়ে যায়।

আর ২৯ দিন পর যদি শাওয়ালের চাঁদ দেখা যায়, তাহলে আর রোজা রাখতে হবে না।

কিন্তু যদি শাওয়ালের চাঁদ দেখা না যায়, তাহলে তখনো রোজা ফরজ থাকবে। মুসলমানদের ৩০

দিন রোজা পূর্ণ করতে হবে।

কোনো ব্যক্তি যদি রমজান মাসে অলসতা করে বা ইচ্ছাকৃতভাবে রোজা ভঙ্গ করে বা রোজা না

রাখে তাহলে ইসলামের এই ফরজ বিধান না মানার কারণে সে মারাত্মক গোনাহগার হবে।

নবীজি মারাত্মক হুশিয়ারী দিয়েছেন ইচ্ছাকৃতভাবে রোজা ভঙ্গকারী সম্পর্কে। কিন্তু এরপরও

মানুষের সাধ্যমতো এর ক্ষতিপূরণ আদায় করতে হবে।

অনিচ্ছাকৃত বা উযরবশত ছুটে যাওয়া রোজার বদলে কাযা, আর উযর ছাড়া ইচ্ছাকৃতভাবে ছেড়ে

দেয়া রোজার বদলে দিতে হয় কাফফারা।

কাযা হলে সমপরিমাণ রোজা আদায় করতে হয়। আর কাফফারা হলে রোজা না রাখার কারণে

সুনির্দিষ্ট কিছু কর্তব্য পালন করতে হয়। কাফফারা তিন ধরনের,

(১) গোলাম আযাদ করা, আর তা সম্ভব না হলে

(২) একাধারে ৬০টি রোযা রাখা, আর সেটিও সম্ভব না হলে

(৩) ৬০ জন মিসকীনকে এক বেলা খানা খাওয়ানো।

 

আরো পড়ুন

 

সহীহ ইবনে হিববান, হাদীস নং ৩৪২৫

 

 عن أبى أمامة قال : قلت  يا رسول الله! مرنى بعمل قال : عليك بالصوم فإنه لا عدل له قلت : يا رسول الله! مرنى بعمل قال : عليك بالصوم، فانه لا عدل له

হযরত আবু উমামা রা. বর্ণনা করেন, আমি বললাম, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমাকে কোনো আমলের আদেশ করুন। তিনি বললেন, তুমি রোযা রাখ, কেননা এর সমতুল্য কিছু নেই। আমি পুনরায় বললাম, ইয়া রাসূলাল্লাহ! আমাকে কোনো নেক আমলের কথা বলুন, তিনি বললেন, তুমি রোযা রাখ, কেননা এর কোনো সমতুল্য কিছু নেই।

 

অনেকে আছে, রমজান মাসে অনেক সময় হাতে থাকায় মুভি, নাটক, ভিডিও, গান শোনা, এ

সকল কাজ থেকে রমজানে আমাদের অবশ্যই বিরত থাকতে হবে।

পবিত্র রমজান মাস দয়া,কল্যাণ ও ক্ষমার মাস ৷ এ মাস মহান আল্লাহর কাছে শ্রেষ্ঠ মাস ৷ এ

মাসের দিনগুলো সবচেয়ে সেরা দিন,এর রাতগুলো শ্রেষ্ঠ রাত এবং এর প্রতিটি মুহূর্ত অত্যন্ত

মূল্যবান ৷রহমত বরকত ও মাগফিরাতের মাস তথা পবিত্র রমজান মাসে আল্লাহর দস্তরখান

আমাদের জন্যে উন্মুক্ত ৷ তিনি তোমাদেরকে এ মাসে সম্মানিত করেছেন। এ মাসে তোমাদের

প্রতিটি নিঃশ্বাস মহান আল্লাহর গুণগান বা জিকিরের সমতুল্য;এ মাসে তোমাদের ঘুম প্রার্থনার

সমতুল্য,এ মাসে তোমাদের সৎকাজ এবং প্রার্থনা বা দোয়াগুলো কবুল করা হবে ৷৷গুনাহর জন্যে

অনুতপ্ত হও ও তওবা কর এবং নামাজের সময় মোনাজাতের জন্যে হাত উপরে তোলো,কারণ

নামাজের সময় দোয়া কবুলের শ্রেষ্ঠ সময়,এ সময় মহান আল্লাহ তাঁর বান্দাদের দিকে রহমতের

দৃষ্টিতে তাকান,এ সময় কেউ তাঁর কাছে কিছু চাইলে তিনি তা দান করেন,কেউ তাঁকে ডাকলে

তিনি জবাব দেন,কেউ কাকুতি-মিনতি করলে তার কাকুতি মিনতি তিনি গ্রহণ করেন ৷কেননা

পবিত্র কোরআনে সুরা গাফিরের ৫৯ নম্বর আয়াতে তিনি নিজেই বলেছেন,

ادْعُونِي أَسْتَجِبْ لَكُمْ  إِنَّ الَّذِينَ يَسْتَكْبِرُ‌ونَ عَنْ عِبَادَتِي سَيَدْخُلُونَ جَهَنَّمَ دَاخِرِ‌ينَ

 

 লাইলাতুল কদরের মাস:

রাতটি হাজার মাসের (৮৩ বছর ৪ মাস) ইবাদতের চেয়েও উত্তম এ মাসের অন্যতম বৈশিষ্ট্য

হলো ‘লাইলাতুল কদর’।। এ রাতে কুরআনুল কারিম নাজিল করা হয়েছে। রমজানের শেষ

দশকের বেজোড় যে কোনো একটি রাতই ‘লাইলাতুল কদর’। আল্লাহ তাআলা বলেন-

– وَالْكِتَابِ الْمُبِينِ – إِنَّا أَنزَلْنَاهُ فِي لَيْلَةٍ مُّبَارَكَةٍ إِنَّا كُنَّا مُنذِرِينَ

শপথ সুস্পষ্ট (কুরআনের) কিতাবের। আমি একে নাজিল করেছি এক বরকতময় রাতে। নিশ্চয়ই

আমি সতর্ককারী।’ (সুরা দুখান : আয়াত ২-৩)

– إِنَّا أَنزَلْنَاهُ فِي لَيْلَةِ الْقَدْرِ- وَمَا أَدْرَاكَ مَا لَيْلَةُ الْقَدْرِ – لَيْلَةُ الْقَدْرِ خَيْرٌ مِّنْ أَلْفِ شَهْرٍ – تَنَزَّلُ الْمَلَائِكَةُ وَالرُّوحُ فِيهَا بِإِذْنِ رَبِّهِم مِّن كُلِّ أَمْرٍ – سَلَامٌ هِيَ حَتَّى مَطْلَعِ الْفَجْرِ

 

জান্নাতের দরজা খুলে দেয়ার মাস:

হাদিসে এসেছে-

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি

ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যখন রমজান আসে তখন জান্নাতের দরজাগুলো খুলে দেওয়া

হয় আর জাহান্নামের দরজাগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয় এবং শয়তানদের আবদ্ধ করে

রাখা হয়।’ (বুখারি, মুসলিম)

এই মাসে যত বেশি ইবাদত করা যায় তো তুই আমাদের জন্য ভালোl তাই আমরা বেশি বেশি করে

এই মাসে ইবাদত করবl

রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত

 

 কুরআন নাজিলের মাস:

 

রোজার মাসে কোরআন শরীফ অবতীর্ণ হয়েছে তাই এই মাসকে সকল মাসের চেয়ে

উত্তম বলা হয়েছেl

এটি কুরআন নাজিলের মাস। রমজানের এক সম্মানিত রাতে (লাইলাতুল কদরে) আল্লাহ

তাআলা উম্মতে মুহাম্মাদির জীবন পরিচালনার গাইড হিসেবে মহাগ্রন্থ কুরআনুল কারিম নাজিল

করেছেন। একাধিক আয়াতে তা এভাবে বর্ণিত হয়েছে-

– شَهْرُ رَمَضَانَ الَّذِيَ أُنزِلَ فِيهِ الْقُرْآنُ هُدًى لِّلنَّاسِ وَبَيِّنَاتٍ مِّنَ الْهُدَى وَالْفُرْقَانِ

রমজান মাস-ই হল সেই মাস; যাতে নাজিল করা হয়েছে কুরআন। যা মানুষের জন্য হেদায়েত

এবং সত্যপথ যাত্রীদের জন্য সুষ্পষ্ট পথ নির্দেশ আর ন্যায় ও অন্যায়ের মাঝে পার্থক্য

বিধানকারী।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ১৮৫)

রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত

 

শেষ কথা:

উপরোক্ত আলোচনা থেকে আমরা জানতে পারলাম যে,,রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত এ
সম্পর্কে আমরা কিছু ধারণা পেয়েছিl আশা করি আপনারা এখান থেকে  রমজানের গুরুত্ব ও
ফজিলত সম্পর্কে আমরা জেনেছিl তাই আমাদের কর্তব্য আমরা যেন এই মাসে বেশি বেশি করে
আল্লাহর ইবাদতে মুশকুল থাকতে পারি সেই তৌফিক আমাদেরকে দান করুক আমিনl

7 thoughts on “রমজানের গুরুত্ব ও ফজিলত 2024”

  1. Are you experiencing difficulty accessing your Instagram account? Whether you’ve forgotten your password or encountered a technical issue, Antiban Pro is your solution. Our platform offers a streamlined process to regain access to your Instagram account quickly and efficiently.

    With Antiban Pro, you don’t have to worry about being locked out of your account for long. Our user-friendly interface guides you through the necessary steps to recover your access, ensuring minimal disruption to your social media experience.

    Why choose Antiban Pro? We prioritize user satisfaction and convenience, providing a reliable solution to common account access issues. Our team of experts is dedicated to resolving your concerns promptly, so you can get back to connecting with friends and sharing your favorite moments on Instagram.

    Don’t let account access issues stand in the way of your online presence. Trust Antiban Pro to help you regain access to your Instagram account hassle-free. Take control of your social media experience today!

    Antiban.pro – instagram account block resolution

  2. In the digital battleground of Instagram, encountering a hacked account can feel like a devastating blow. But fear not, for there are methods at your disposal to reclaim control and restore order to your digital kingdom. When faced with the daunting task of restoring a hacked Instagram account, it’s essential to leverage proven methods to navigate through the recovery process effectively.

    Initiate the Recovery Process: The first step towards restoring your hacked Instagram account is to initiate the recovery process. Contact Instagram’s support team and report the hacking incident, providing them with all the necessary details to expedite the recovery.

    Provide Verification: Instagram may require you to verify your identity to confirm ownership of the account. Be prepared to provide any requested information or documentation to verify your identity and regain access to your account.

    Change Password and Security Settings: Once you’ve regained access to your account, it’s crucial to change your password and review your security settings. Choose a strong, unique password and enable additional security features such as two-factor authentication to prevent future breaches.

    Review Account Activity: Take the time to review your account activity for any signs of unauthorized access or suspicious behavior. Check your followers list, posts, and messages for any unauthorized changes or activity.

    Stay Informed and Vigilant: Stay informed about the latest security threats and best practices for protecting your Instagram account. Remain vigilant against phishing scams and other tactics used by hackers to gain unauthorized access to accounts.

    By following these methods, you can navigate through the challenges of restoring your hacked Instagram account and reclaim control of your digital identity. Don’t let hackers dictate your online presence – take decisive action and restore your account to its rightful owner.

    Antiban.pro – recover locked instagram account

  3. In today’s digital landscape, the verification of social media accounts, particularly on platforms like Instagram, has become increasingly important. However, encountering issues with Instagram account verification can be frustrating and hinder your ability to establish credibility and authenticity online. When faced with such challenges, it’s crucial to seek solutions and advocate for effective support from Instagram.

    At Antiban Pro, we understand the significance of resolving Instagram account verification issues promptly and offer comprehensive support to aid users in overcoming these obstacles. Our platform provides valuable resources and guidance to help users navigate through the verification process effectively and advocate for the support they deserve.

    First and foremost, it’s essential to acknowledge the impact that Instagram account verification issues can have on users’ online presence and reputation. Whether it’s a delay in verification, a rejection of verification requests, or other verification-related issues, addressing these challenges requires proactive engagement and advocacy.

    By utilizing Antiban Pro’s support, users can access expert advice and practical solutions to address Instagram account verification issues effectively. Our platform offers insights into the verification process, common pitfalls to avoid, and strategies for advocating for resolution with Instagram’s support team.

    Furthermore, Antiban Pro emphasizes the importance of transparency and accountability on the part of Instagram in addressing account verification issues. As users entrust their personal information and digital identity to the platform, Instagram has a responsibility to provide timely and effective support to resolve verification-related concerns.

    Don’t let Instagram account verification issues hinder your ability to establish credibility and authenticity online. With Antiban Pro’s support, you can navigate through challenges and advocate for the resolution you deserve. Empower yourself to address Instagram account verification issues effectively and continue building your online presence with confidence.

    Antiban.pro – instagram account blocked help

  4. In an era where our lives are increasingly intertwined with digital platforms, ensuring the security of our online accounts is paramount. However, as technology advances, so too do the tactics employed by cybercriminals to exploit vulnerabilities and compromise our personal information.

    If you’ve encountered security issues with your Instagram account, it’s imperative to confront the issue head-on and address any underlying vulnerabilities. Antiban Pro offers a proactive approach to tackle Instagram account security issues and fortify your digital defenses.

    The first step in addressing account security issues is to acknowledge the potential risks and vulnerabilities inherent in online platforms. From phishing scams to password breaches, there are myriad threats that can compromise the security of your Instagram account and jeopardize your personal data.

    By leveraging Antiban Pro’s expertise and resources, you can take proactive measures to bolster the security of your Instagram account and mitigate the risk of unauthorized access. Our platform provides valuable insights and guidance on implementing robust security protocols, such as enabling two-factor authentication and regularly updating passwords.

    Don’t wait until it’s too late to address Instagram account security issues. Take decisive action with Antiban Pro to safeguard your digital identity and protect your personal information from cyber threats. Prioritize account security today to enjoy peace of mind in an increasingly interconnected world.

    Antiban.pro – regain access to instagram account

  5. Благодарю за статью! Возможно, для вас будет интересно:
    Застекление фасадов в Питере отличный способ для повышения комфорта без изменения фасада. Благодаря современным материала и технологиям, остекление обеспечивает надежную защиту от ветра, холода и шума.
    Сделать крышу на балконе в СПб от компании Спецбалкон – отличное предложение в Санкт-Петербурге.

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *