ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট

Rate this post

ভূমিকা:

 

টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে এবং স্বল্প পরিসরে টাকা সঞ্চয়ের ক্ষেত্রে ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট

একাউন্টের কোন বিকল্প নেই। স্টুডেন্ট একাউন্টের জন্য ইসলামী ব্যাংক দিচ্ছে সর্বোচ্চ সুবিধা।

১৮ থেকে ৩০ বছর বয়সের মধ্যে স্টুডেন্ট ইসলামিক ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট সম্পূর্ণ বিনামূল্যে

ব্যবহার করতে পারবে।

বাসা থেকে প্রতিনিয়ত টাকা লেনদেন করা কষ্টকর হয়ে যায় এক্ষেত্রে তারা ইসলামী ব্যাংক

স্টুডেন্ট একাউন্ট ব্যবহার করতে পারে।

বর্তমানে ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে যে কোন পড়াশোনা, পরীক্ষার ফি, ফরম ফিলাপ ইত্যাদি

থেকে ফি প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে।

আপনি যদি একজন স্টুডেন্ট হয়ে থাকেন সে ক্ষেত্রে আপনিও ইসলামী ব্যাংকের স্টুডেন্ট

অ্যাকাউন্ট খুলে ইসলামী ব্যাংকের সেবা নিতে পারবেন।

ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট হিসেবে আপনি সর্বোচ্চ ৩০ বছর বয়স পর্যন্ত এই একাউন্ট

ব্যবহার করতে পারবেন।

 

আরো দেখুন

 

ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট:

 

টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে এবং স্বল্প পরিসরে টাকা সঞ্চয়ের ক্ষেত্রে ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট

একাউন্টের কোন বিকল্প নেই। স্টুডেন্ট একাউন্টের জন্য ইসলামী ব্যাংক দিচ্ছে সর্বোচ্চ সুবিধা।

১৮ থেকে ৩০ বছর বয়সের মধ্যে স্টুডেন্ট ইসলামিক ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট সম্পূর্ণ বিনামূল্যে

ব্যবহার করতে পারবে।

বাসা থেকে প্রতিনিয়ত টাকা লেনদেন করা কষ্টকর হয়ে যায় এক্ষেত্রে তারা ইসলামী ব্যাংক

স্টুডেন্ট একাউন্ট ব্যবহার করতে পারে।

বর্তমানে ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে যে কোন পড়াশোনা, পরীক্ষার ফি, ফরম ফিলাপ ইত্যাদি

থেকে ফি প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে।

আপনি যদি একজন স্টুডেন্ট হয়ে থাকেন সে ক্ষেত্রে আপনিও ইসলামী ব্যাংকের স্টুডেন্ট

অ্যাকাউন্ট খুলে ইসলামী ব্যাংকের সেবা নিতে পারবেন।

ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট হিসেবে আপনি সর্বোচ্চ ৩০ বছর বয়স পর্যন্ত এই একাউন্ট

ব্যবহার করতে পারবেন।

ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট
ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট

 

আরো দেখুন

 

 স্টুডেন্ট একাউন্টের সুবিধা সমূহ

 

স্টুডেন্ট একাউন্টের জন্য যেসব সুযোগ সুবিধা গুলো প্রদান করছে এই সকল সুযোগ সুবিধার

জন্যই স্টুডেন্টরা মূলত ইসলামী ব্যাংকের দিকে বেশি আগ্রহ প্রকাশ করে।

বাংলাদেশের ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্টের জন্য সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করছে। ইসলামী

ব্যাংক স্টুডেন্ট অ্যাকাউন্টের জন্য কি কি সুবিধা প্রদান করছে সেগুলো নিচে  তুলে ধরা হলো:

  • ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্টের জন্য ব্যাংক পরিচালনা সম্পূর্ণ বিনা খরচে প্রদান করছে।
  •  লেনদেন করার জন্য কোন কাস্টম প্রদান করতে হবে না। তবে যদি নির্দিষ্ট পরিমান অর্থে চেয়ে বেশি টাকা লেনদেন করা হয় সে ক্ষেত্রে সরকারি শুল্ক প্রধান করতে হতে পারে।
  •  ফ্রি এটিএম ভিসা কার্ড প্রদান করে। এক্ষেত্রে গ্রাহক দেশ-বিদেশের যেকোনো এটিএম বুথ থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারবে। তবে ভিসা লোগো যুক্ত কোন বুথ থেকে টাকা উত্তোলন করার সময় গ্রাহককে ১৫ টাকা চার্জ দেওয়া লাগতে পারে।
  •  এর মাধ্যমে যেকোনো সময় মোবাইল রিচার্জ করা যায় এবং যেকোনো জায়গায় সহজেই ফান্ড ট্রান্সফার করার সুবিধা রয়েছে।
  •  ফ্রি এসএমএস সুবিধা রয়েছে। আপনি খুব সহজেই এসএমএস এর মাধ্যমে আপনার স্টুডেন্ট একাউন্টের তথ্য জানতে পারবেন।
  •  যেকোনো ফি প্রদানের ক্ষেত্রে ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে পারবেন।
  •  ১৮ থেকে ৩০ বছর বয়স পর্যন্ত ব্যাংক একাউন্ট পরিচালনা সম্পূর্ণ ফ্রি

    ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট

একাউন্ট খোলার শর্তাবলী:

 

আরো দেখুন

 

ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট খোলার বেশ কিছু শর্ত রয়েছে।  নিম্নলিখিত শর্তগুলো প্রযোজ্য হবে-

  •  অবশ্যই স্টুডেন্ট হতে হবে এবং বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে।
  • স্টুডেন্ট হিসেবে তার প্রতিষ্ঠান থেকে স্টুডেন্টের সত্যতা যাচাই করতে হবে l
  •  ১৮ বছর বা তার উপরে রয়েছে তারা নিজেরাই তাদের অ্যাকাউন্ট পরিচালনা করতে পারবে।
  • ১৮ বছরের কম তারা তাদের অভিভাবকের দ্বারা এই অ্যাকাউন্ট পরিচালনা করতে হবে।

    ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট

একাউন্ট খোলার জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস:

 

আপনি যখন ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট খুলবেন তখন এর জন্য আপনার কিছু

ডকুমেন্টস প্রয়োজন হবে।

 

 

 

  • স্টুডেন্ট হিসেবে অধ্যয়নরত প্রতিষ্ঠানের প্রধান হতে প্রদত্ত প্রত্যয়ন পত্র।
  •  এনআইডি কার্ড থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে প্রত্যয়নপত্র প্রয়োজন হবে না।
  • দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন সত্যায়িত ছবি।
  •  ১৮ বছর বয়সের কম হয় তাহলে সে ক্ষেত্রে তার অভিভাবকের দুই কপি ছবি প্রয়োজন হবে।
  • এনআইডি কার্ডের ফটোকপি। এনআইডি কার্ড না থাকলে অনলাইন জন্ম নিবন্ধন এর ফটোকপি।

 

 স্টুডেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম:

 

ইসলামিক ব্যাংক সম্পর্কে সবকিছু জানলেন, এখন কথা হচ্ছে ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট

অ্যাকাউন্ট আপনি কিভাবে খুলবেন? ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট মূলত দুইটি উপায়ে

খোলা যায়।

একটি হচ্ছে আপনার নিকটস্থ ব্রাঞ্চে গিয়ে, অন্যটি হচ্ছে সেলফিন অ্যাপের মাধ্যমে। আপনি

যদি কোন ঝামেলা না যান সে ক্ষেত্রে আপনি সরাসরি ব্রাঞ্চে গিয়ে একটি ফরম পূরণ করে খুব

সহজে ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট খুলতে পারেন। যেভাবে পারেন আপনার ইচ্ছা তে

অ্যাকাউন্ট খুলে নিতে পারেনl

 

 ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম:

 

  • ইসলামী ব্যাংকের ব্রাঞ্চে গিয়ে হেল্প কর্নারে গিয়ে তাদের কাছ থেকে জেনে নিন যে আপনি ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট খুলতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে কি করতে হবে।
  • এক্ষেত্রে উক্ত ডেস্কে কর্মরত কর্মকর্তা আপনাকে যে নির্দেশনা দিবেন সেই নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করুন।
  • এক্ষেত্রে তারা আপনাকে একটি ফর্ম প্রদান করবে।
  • আপনার ডকুমেন্টস দেখে খুব ভালো করে সেই ফর্মটি পূরণ করে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস সহ তাদের হাতে জমা দিন।
  • এক্ষেত্রে আপনার ১০০ টাকা ডিপোজিট করতে হবে। সেই টাকাটা সহ জমা দিন।
  • এরপর সেখানে কয়েক মিনিট অপেক্ষা করুন।
  • কয়েক মিনিট পরে আপনার ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্টে ওপেন করে দেয়া হবে।
  • স্টুডেন্ট একাউন্ট খোলার কিছু মুহূর্ত পরেই আপনার একাউন্টে এক্টিভেট হয়ে যাবে।
  • এরপর কয়েকদিনের মধ্যে আপনাকে এটিএম ভিসা কার্ড প্রদান করা হবে।

 

অনলাইনে ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট খোলার নিয়ম:

 

এবার চলুন অনলাইনে কিভাবে ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট একাউন্ট খুলতে হয় সেটি আমরা

জানবো। অনলাইন বলতে এটি মূলত সেলফিন অ্যাপ এর মাধ্যমে করা হয়।

অনেক সময় সাপেক্ষ একটি বিষয়। আপনি যদি ব্রাঞ্চে গিয়ে ইসলামী ব্যাংকের স্টুডেন্ট

একাউন্ট খুলতে না চান সে ক্ষেত্রে আপনি বাসায় বসেও এটি খুলতে পারবেন।

আপনি যদি ভিডিওর মাধ্যমে দেখে নিয়ে এই অ্যাকাউন্টটি আপনি চাইলে সেখান থেকে

আইডিয়া নিতে পারেন এবং কিভাবে একাউন্ট করতে হয় সে ব্যাপারে আপনি কিছু ধারণা নিতে

পারেনl এভাবে করে আপনি , আপনার কাজ করতে পারেনl

 

 স্টুডেন্ট একাউন্ট এর লেনদেনের সীমা:

 

  •  আপনি কত টাকা পর্যন্ত লেনদেন করতে পারবেন সেটা বলা অনেক কঠিন বিষয় কারণ
  • এটি সম্পূর্ণ নির্ভর করবে আপনার পেশা অনুযায়ী।
  •  যদি আপনি কোন পেশায় যুক্ত থেকে থাকেন সেটির উপর নির্ভর করে আপনার
  • ট্রানসেকশন লিমিট সেট করে দেয়া হবে।
  •  আপনি যে ব্রাঞ্চ থেকে খুলবেন সেই ব্রাঞ্চে গিয়ে আপনাকে জেনে নিতে হবে যে আপনার
  • ইসলামী ব্যাংকের স্টুডেন্ট একাউন্টে লেনদেনের সীমা কত টাকা পর্যন্ত।

 

শেষ কথা:

 

উপরোক্ত আলোচনা থেকে আমরা জানতে পারলাম যে,

টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে এবং স্বল্প পরিসরে টাকা সঞ্চয়ের ক্ষেত্রে ইসলামী ব্যাংক স্টুডেন্ট

একাউন্টের কোন বিকল্প নেই। স্টুডেন্ট একাউন্টের জন্য ইসলামী ব্যাংক দিচ্ছে সর্বোচ্চ সুবিধা।

১৮ থেকে ৩০ বছর বয়সের মধ্যে স্টুডেন্ট ইসলামিক ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট সম্পূর্ণ বিনামূল্যে

ব্যবহার করতে পারবে।

বাসা থেকে প্রতিনিয়ত টাকা লেনদেন করা কষ্টকর হয়ে যায় এক্ষেত্রে তারা ইসলামী ব্যাংক

স্টুডেন্ট একাউন্ট ব্যবহার করতে পারে।

বর্তমানে ব্যাংক একাউন্টের মাধ্যমে যে কোন পড়াশোনা, পরীক্ষার ফি, ফরম ফিলাপ ইত্যাদি

থেকে ফি প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে।

আপনি যদি একজন স্টুডেন্ট হয়ে থাকেন সে ক্ষেত্রে আপনিও ইসলামী ব্যাংকের স্টুডেন্ট

অ্যাকাউন্ট খুলে ইসলামী ব্যাংকের সেবা নিতে পারবেন।

ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট হিসেবে আপনি সর্বোচ্চ ৩০ বছর বয়স পর্যন্ত এই একাউন্ট

ব্যবহার করতে পারবেন।

1 thought on “ইসলামী ব্যাংকে স্টুডেন্ট একাউন্ট”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *