Latest post Uncategorized

কি হবে মানুষ ছাড়া এই পৃথিবীর??

Written by pro_noob

আপনি কি একবার ও ভেবে দেখেছেন, যদি পৃথিবী থেকে হটাৎ ই সব মানুষ উধাও হয়ে যায় তবে এই পৃথিবীর কি হবে? কি হবে মানুষ ছাড়া মানুষ এর মানুষ এর এই নির্মান এর। কিভাবে বসবাস করবে বাকি প্রানীরা এর পৃথিবীতে?
বিজ্ঞানী দের অনুমান অনুযায়ী সবার প্রথম যে পরিবর্তন টি হবে তা হলো ধীরে ধীরে পৃথিবীর সব আলো নিভে যাবে। কারন পৃথিবী অধিকাংশ পাওয়ার স্টেশন ফসিফুয়েলের সাহায্যেই চলে আর এই গুলোকে চালায় মানুষ। তাই মানুষ না থাকলে এই গুলো চলবে কি করে?

মানুষ ছাড়া এর পৃথিবীতে মাত ৪৮ ঘন্টা পরেই পৃথিবীর সব নিউক্লিয়ার প্লান্ট সেফটি মুডে চলে আসবে। কারন এনার্জি কঞ্জামশন কমে যাবে। সব অয়েন বিল্ড ততক্ষন চলবে যতক্ষন তাদের মধ্যে লুব্রিকেন্ড থাকবে। আর আস্থে আস্তে সব সোলার প্যেনেল কাজ করা বন্ধ করে দিবে, কারন সেগুলোকে পরিষ্কার ও নিয়ন্ত্রন করার জন্য কেউ থাকবে না। ফলে সোলার প্যেনেল এর উপরে মাটি জমতে থাকবে। আর এই অবস্থায় সম্পূর্ন পৃথিবীকে মহাকাশ থেকে সম্পূর্ন কালো দেখাবে। কিন্তু কিছু মানুষ দ্বারা বানানো সিস্টেম তার পরে ও কাজ করতে থাকবে। যেমন কিছু ড্যাম এমন আছে যারা পানির শ্রোতের দ্বারা এক্টিভ হয়। এমন সব সিস্টেম মাসের পর মাস চলতে থাকবে এবং বিদ্যুৎ তৈরি করতে থাকবে। কিন্তু মানুষের অন্যতম সৃষ্টি মেট্রো সিস্টেম কিছু দিনের মধ্যেই সম্পূর্ন পানির তলায় চলে যাবে। কারন প্রত্যেকটি মেট্রোর আন্ডার গ্রাউন্ড প্যাসেজের সাইডে পাম্প তৈরি করা থাকে যাতে মেট্রোতে পানি না ঢোকে। আর যখন পাম্প গুলো খারাপ হয়ে যাবে তখন মেট্রো সম্পূর্ন পানির নিচে চলে আসবে।

কিন্তু মানুষ ছাড়া ও এই পৃথিবী তে মিলিয়ন এর বেশী প্রজাতির প্রানী বসবাস করে থাকে, তাদের কি হবে ?

প্রথমেতো মানুষ দ্বারা পালিৎ সব পশুপাখি খিদেতেই মারা যাবে। যারা বাইরে খাদ্যের খোজের বের হবে, তাদের বাইরের অথবা জংলি পশুরা মেরে খেয়ে ফেলবে। আর যত গবাদি পশু যেমন মরগি, গরু, কুকুর এরা আস্তে আস্তে সবাই মরে যাবে। কারন তাদের দরকারী খাবার যোগানের জন্য তাদের মালিকেরা থাকবে না। কিন্তু পশুপাখী আরো বিপদে পরবে মানুষ পৃথিবী থেকে উধাও হওয়ার একমাস পর থেকে।

যত কুলিং ওয়াটার কোল্ড প্রডাকশনে ব্যবহৃত হয় বিদ্যুৎ তৈরিতে তা সব তরল থেকে উজ্জ হতে শুরু হবে। যার ফলে প্রত্যেক্টি কয়লার পাওয়ার পয়েন্ট ধিরে ধিরে গলেতে থাকবে এবং হটাৎ ই ফেটে যাবে। এর ফলে তৈরি হবে রেডিয়েশন। যার দরুন লক্ষ্য লক্ষ্য প্রানী ঐ রেডিয়েশন এর প্রভাবে মারা যাবে।

ঠিক এক বছর পর পৃথিবীতে বেচে থাকা বাকি প্রানীরা আকাশে অনেক তারাকে পৃথিবীর দিকে পরতে দেখবে। কিন্তু আসলে অগুলো তারা হবে না। অগুলো মানুষ এর তৈরি বিভিন্ন যন্ত্র, যা এত দিন মানুষ মহাকাশে পৌছেছে। যেমন স্যাটেলাইট, যা মানুষ ছাড়া অকেজো হয়ে পরবে এবং পৃথিবীর মার্ধাকর্ষন এর বলে নিচে আসতে থাকবে এবং বায়ুমন্ডলের সংস্পর্শে এসে গতীর প্রভাবে তা আগুনের গোলায় পরিনত হবে। যা পৃথিবীর নিচ থেকে দেখে উল্কাপাত মনে হবে।

সময় এর সাথে সাথে পৃথিবী আবার নিজের মত হতে শুরু করবে। মানুষ দ্বারা তৈরি রেডিয়েশন পলিয়শন খুব তারা তারি পৃথিবী থেকে দূর হবে। কারন নতুন হাবে এইসব তৈরি করার মত কেউ থকাবে না। প্রানীরা আবার নতুন করে জন্মাতে শুরু করবে। দুবাই, লাজভেগাস, রাজস্থান, মিশরের মত শহর এবং দেশ গুলি বালির উপর তৈরি তাই এই শহর গুলি আস্তে আস্তে সম্পূর্ন বালির নিচে চলে যাবে। আর বাকি সব শহর গুলির রাস্তাঘাট জংগলে পরিনত হবে। সব বাড়িঘর বিল্ডিং এ ও উদ্ভিদ জন্মাবে। য পরিনত হবে জীবত পশুপাখি দের বাস্থানে। কারন সে সময় গাছপালা কাটার মত কেউ থাকবে না। এই ভাবে কিছু সময় চলতে থাকার পর। প্রায় ৩০০ বছর পর মানুষের অধিকাংশ বড় বড় মেটাল এর তৈরি নির্মান যেমন আইফেল টাওয়ার, লন্ডন ব্রিডজ বাকি সব ব্রিডজ এবং বড় বড় বিল্ডিং ভাংতে শুরু করবে। জং লেগে বা কোনো রকম মেইন্টেনেন্স না হওয়ার কারনে। এই নির্মান গুলি ধংশের ফলে বিভিন্ন স্থানে জমে থাকা জল সব স্থানে প্রশারিত হবে। জলের এই ছরিয়ে যাওয়াতে পশুপাখিদের অনেক বেশি সুবিধা হবে। যার ফলে নতুন নতুন প্রজাতির প্রানীরা জন্মাতে শুরু করবে। হয়তো লুপ্ত হওয়া প্রানীরা আবার জন্ম নিতে শুরু করবে।

মানুষের চলে যাওয়াতে শুধু মাত্র স্থল ভূমির প্রানীদের ই সুবিধা হবে তা কিন্তু নয়।  জল ও জলয প্রানীদের জীবন জাপনে ও উন্নতি আসবে। আর তার কিছু সময় পর সব শহর পরিবর্তন হতে হতে প্রকিৃতিক সৌন্দর্যে পরিবর্তন হবে।

এক হাজার বছর পর মানুষের নির্মানের শুধু মাত্র কিছু চিহ্নই থাকবে, যেমন পিরামিড, চায়নার গ্রেট ওয়াল। আর একলক্ষ বছর পর তা ও অবশিষ্ট থাকবে না। কিন্তু থাকবে কিছু জিনিস যা মানুষ এর ই তৈরি করা তা হলো প্লাস্টিকের বোতল, প্লাস্টিকের তৈরি দ্রব্য এবং প্লাস্টিকের নোংরা আবর্জনা। তা ও প্রায় ৫০ লক্ষ বছর পর থাকবে না। অর্থাৎ তার পরে যদি পৃথিবী তে কোনো বুদ্ধিমান সোভ্যতার সৃষ্টি হয় তারা হয়তো কোনো দিন যানতে ও পারবে না এই পৃথিবী তে আমার আপনার মত মানুষের বসবাস ছিলো।

Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments