আজ নিজের বিয়েটা নিজেই ভাঙ্গেতে যাচ্ছি

আজ নিজের বিয়েটা নিজেই ভাঙ্গেতে যাচ্ছি,,, আম্মু এইমাত্র হাতে একটা শাড়ী ধরিয়ে দিয়ে বললো শাড়ীটা পড়ে নিচে আয়,,,পাত্রপক্ষ দেখতে এসেছে,,,পাত্রের নাকি আমার ছবি দেখে খুব পছন্দ হয়েছে যে একেবারে পাকা কথা বলতে চলে এসেছে,,,আমি ও আজ সকালে জানতে পারলাম,,

আব্বু,আম্মু,কাকা,,কাকিমা,,আগে থেকে আমাকে কিছুই জানালো না,,এমন একটা ডিসিশন নিয়ে ফেললো। আমি ও রেডি বিয়েটা ভাঙ্গার জন্য,,আম্মুর দেওয়া শাড়ীটা রেখে দিয়ে একটা জিন্স প্যান্ট, শার্ট, হাইহিল পড়ে,, হাতে একটা ঘড়ি, চোখে বড় স্যানগ্রিলাস পড়ে চুল গুলো উচু করে বেধে নিলাম,, এবার আমি রেডি পাত্রপক্ষের সামনে যাওয়ার জন্য,,

আমাকে বিয়ের কথা না জানানোর জন্য বিয়েটা ভাঙ্গতে যাচ্ছি না,,বিয়েটা ভাঙ্গতে যাওয়ার আসল কারন হচ্ছে আমার বেস্টফ্রেন্ড,, সকালে আমার বেস্টফ্রেন্ড আমাকে এসে বললো আজ ভার্সিটি বন্ধ তোকে আজ ভার্সিটি যেতে হবে না,,আম্মু এসে তখনি বললো,,যে আজ বিকেলে আমার বিয়ের পাকা কথা বলতে আসবে,,তখনি আমি আর আমার ফ্রেন্ড জানতে পারি,,,

এমন কথা শুনে আমার মাথায় যেন আকাশ ভেঙ্গে পরলো,,আমারা দুজন অবাক হয়ে আম্মু দিকে তাকিয়ে আছি,,যেই কিছু বলতে যাবো আম্মু আমাদের কথা না শুনে তখনি চলে গেলো,,,আমার বেস্টফ্রেন্ড আমার দিকে হা করে তাকিয়ে আছে,, আমিঃ হা করে তাকিয়ে আসিছ কেনো,, মুখে মাছি ঢুকবে,, বেস্টফ্রেন্ডঃ ছোটোমা এগুলো কি বলছে,,,,

তুই বিয়ে করছিস আর আমি জানতে পারলাম না,, এটা কি করে হতে পারে,, আমিঃআমিও এইমাত্র জানতে পারলাম,,, বেস্টফ্রেন্ডঃ তোকে না জানাতে পারে,,কিন্তু আমাকে তো জানাতে পারতো,,, আমিঃ আমি ও ভাবতে পারছিনা,, এভাবে আমার বিয়ে কথা বলতে আসবে,,,এতো তাড়াতাড়ি বিয়েটা করতে চাই না,, বেস্টফ্রেন্ডঃ তাহলে বিয়েটা ভেঙ্গে ফেল,,,, -ওকে,,,,

আব্বুকে একবার বললেই বিয়েটা ভেঙ্গে দিবে,,,তার একমাত্র মেয়ের কথা ফেলতে পারবে না,,, -নিজের বিয়েটা নিজে ভাঙ্গতে পারবি না যে কাকুকে দিয়ে ভাঙ্গতে হবে,,,, – তোর কথাই আমিই বিয়েটা ভাঙ্গতে যাবো কেনো,, -আমি দেখতে চেয়েছিলাম তোর নিজের বিয়ে নিজেরই ভাঙ্গার সাহস আছে কি না,,তাই বললাম,, -বিয়েটা ভাঙ্গার দরকার কি,,,

যদি ছেলেটা ভালো হয় তাহলে বিয়ে করতে আমার কোনো পবলেম নাই,, -ও তাই বল,,,,নিজে বিয়ে ভাঙ্গেতে পারবি না,, আর এই গুলো বলে কথা ঘুরানোর চেষ্টা করছিস,, -কি,, আমি বিয়েটা ভাঙ্গতে পারবো না,,, -হুম,,, পারবি না তো,,তোর কি মনেহয় আমি কিছু বুঝি না,, -ওকে,,,,

যদি আমিই বিয়েটা ভাঙ্গতে পারি তাহলে কি দিবি,, -তাহলে তোকে ফুসকা খাওয়াবো,, -শুধু ফুসকা খাওয়ার জন্য আমি বিয়েটা ভেঙ্গে দিবো,, -আচ্ছা,,, তুই যা খেতে চাইবি,,আমি তোকে তাই খাওয়াবো,, -ওকে ডান,,

ডান,,,তবে যদি না পারিছ তাহলে,, -তুই যা বলবি আমি তাই করবো,,, ঠিক আছে বলে আমার বেস্টফ্রেন্ড চলে গেলো,, আমি সব সময় ওর কাছে হেরে যায়,,কিন্তু এইবার আমাকে হারলে চলবে না,,তাই বিয়েটা ভাঙ্গতে যাচ্ছি,,,,

কাকিমা আমাকে নিচে ডাকছে,,,, আমিঃ আসছি কাকিমা,,, বলে যখন সিঁড়ী দিয়ে নিচে নামছি,, আমার আব্বু কুশান চৌধুরী, আম্মু মারিয়া চৌধুরী, কাকা রায়হান চৌধুরী, কাকিমা আশা চৌধুরী আর তাদের সাথে সোফায় বসে আছে মাঝ বয়সী একজন মহিলা,একজন পুরুষ আর কেবলা একটা ছেলে,,

মনে হয় এই ছেলেটা পাত্র আর এরা এর বাবা মা,,, সবাই আমার দিকে হা করে তাকিয়ে আছে,,, আমাদের চৌধুরী পরিবারের সাবার নাম তো জানলেন দাদা-দাদি অনেক আগেই উপরে চলে গেছে,,, এখন আমার নামটা বলছি,,,আমি কথা চৌধুরী,, আব্বু,আম্মু,কাকা,কাকিমার একমাত্র আদরের মেয়ে,,

হঠাৎ কি হলো যে এরা আমাকে বিয়ে দিতে চাইছে,,,ও আর একজনের সাথে তো আপনাদের পরিচয় করানোই হয়নি,,যার কাছে জিতার জন্য নিজেই বিয়েটা ভাঙ্গতে এসেছি আমার বেস্টফ্রেন্ড,, বাঁদরটার সাথে পরে পরিচয় করাচ্ছি আগে বিয়েটা ভেস্তে দেই,,,, আমি ছেলেপক্ষের সামনে গিয়ে সালাম করলাম,,,,

তারা সালামের উত্তর নিলো,, আম্মুঃকথা মামনি পায়ে হাত দিয়ে সালাম করতে হয়,,,,, আমিঃওহ্ আম্মু,,একজন একজন করে পায়ে হাত দিয়ে সালাম করার চেয়ে,, একবারে সাবাইকে সালাম করলাম,,এতে তো তোমাদের ও সালাম করা হয়ে গেছে,,আর এখন কেউ পায়ে হাত দিয়ে সালাম করে না,,

Leave a Comment